h-o-r-o-p-p-a-হ-র-প্পা

Posts Tagged ‘রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

.
| প্রসঙ্গ : সমকালীন ছড়া !
রণদীপম বসু
(০১)
আলোচনার যা বিষয়, তাতে শুরুতেই একটু গৌড়চন্দ্রিকা সেরে নেই। স্থান ও কাল উল্লেখ না করেই বলি, কোন এক কাজে ফুটপাথ ধরে হাঁটছিলাম। হঠাৎ একটা আকর্ষণীয় সাইনবোর্ড চোখে পড়লো, ওটার এক জায়গায় খুব সুন্দর করে লেখা- ‘এখানে যত্ন সহকারে বৈজ্ঞানিক উপায়ে চিকিৎসা করা হয়।’ হতভাগা আমার ভাষাজ্ঞান ও হিউমার-বোধ কম থাকায় ছড়াকার হতে পারি নি কখনো। কিন্তু বৈজ্ঞানিক উপায়ে চিকিৎসার হিউমার-সমৃদ্ধ কথাটা পড়ে ওই চিকিৎসক ব্যক্তিটি ছড়াকার কিনা জানতে ভীষণ কৌতুহল হলো। Read the rest of this entry »

Tagore3

এটাকে কীসের অবমাননা বলবো ?
রণদীপম বসু

.
ক্লাশ টু’র ছাত্র প্রান্তিক, তার স্কুলের বাংলা বইটা এগিয়ে দিয়েই বললো- ‘বাপি, এ বই কে লিখেছে ?’
কে লিখেছে মানে ?
একটা বাচ্চা ছেলেকে যেভাবে যেটুকু বুঝানো যায় সে চেষ্টাই করলাম। শিশুদের কাছে যে সবকিছুই পজিটিভ দৃষ্টিভঙ্গিতে বিশ্লেষণ করতে হয়, তাও মাথায় ছিলো। কিন্তু বেশিদূর আগানো হয় নি, তার আগেই নির্দিষ্ট একটা পৃষ্ঠা দেখিয়ে তার দ্বিতীয় প্রশ্ন- ‘এটা কে লিখেছে… ?’

প্রচ্ছদ পেরিয়েই প্রথম পাতার ভেতরের পৃষ্ঠায় ‘জাতীয় সংগীত’ শিরোনামে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত আমাদের প্রিয় জাতীয় সংগীতের প্রথম দশটি লাইন উৎকীর্ণ। এত্তটুকুন ছেলে যে এরই মধ্যে এতগুলো ছড়াকবিতা ও গল্পের বই পড়ে ফেলেছে, অথচ সে কিনা বইয়ে মুদ্রিত জাতীয় সংগীত দেখিয়ে এমন গর্দভের মতো বলে- এটা কে লিখেছে ! ফাজলামো করছে না তো ? মনঃক্ষুণ্ন তো বটেই, হতাশাযুক্ত ক্ষোভ নিয়ে ধমকে দিতে যাচ্ছিলাম প্রায়…। থমকে গেলাম, নীচে মুদ্রিত রচয়িতার নামটিতে চোখ পড়তেই !

জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড কর্তৃক ২০০৩ সাল থেকে দ্বিতীয় শ্রেণীর পাঠ্যপুস্তকরূপে নির্ধারিত ‘আমার বাংলা বই’ দ্বিতীয় ভাগ বইটি এতগুলো বছর যাবৎ জাতীয় সংগীত রচয়িতার নাম এভাবে ‘রবীন্দ্রাথ ঠাকুর’ হিসেবে বিকৃত ভুল ছাপা নিয়েই গোটা দেশের স্কুলগুলোতে পঠিত হয়ে আসছে ! কারো চোখেই কি পড়লো না এটা ! আর যদি পড়েই থাকে ? ধিক্ অকৃতজ্ঞ আমাদের লজ্জাহীন এমন হীন বৈশ্যবৃত্তিকে, যারা একটিবারও আবশ্যকবোধ করলো না এই বিকৃত মুদ্রনটাকে সংশোধন করতে ! কিন্তু আমাদের জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড এর দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজ্ঞ(!) কর্মকর্তাদের দায়িত্বটা কী ? এরা কি এতোটাই অথর্ব হয়ে গেলেন ! ভাষাপ্রেম, দেশপ্রেম আর শিশুশিক্ষায় এদের দায়িত্ববোধের এই নমূনাকে কী দিয়ে সংজ্ঞায়িত করবো ? দুঃখে লজ্জায় অবোধ সন্তানের চোখে যেন কল্পনায় আমাদের প্রতি তার নিষ্কলুষ ধিক্কারই দেখতে পেলাম !

রবীন্দ্রনাথ আমাদের চিরকালীন অহঙ্কার। তাঁর ১৪৭তম জন্মজয়ন্তীতে এসে তাঁর কাছে অনিবার্য কৃতজ্ঞতায় যতই নতজানু হই না কেন, এই ক্ষমাহীন অযত্ন অবহেলাকে কী দিয়ে মোচন করবো আমরা ?

এটাকে কীসের অবমাননা বলবো ? কেউ কি জবাব দেবে এর ??
(১২/০৫/২০০৮)

.
[sachalayatan]
[amarblog]

book art4

প্রসঙ্গ: ছড়া কিংবা ছড়া নিয়ে গাঁঠছড়া…
রণদীপম বসু

.
ছড়া নিয়ে ছেলেমী করার ঝোঁকটা সম্ভবত ছড়ার জন্মেতিহাসের সাথেই সম্পর্কিত। কিন্তু এই ঝোঁকের মধ্যে যদি দায়বদ্ধতার কোন ছোঁয়া না থাকে তাহলেই তা হয়ে উঠে বিপর্যয়কর। কেমন বিপর্যয় ? হতে পারে ছড়াকে তার আত্মপরিচয় থেকে হটিয়ে দেয়া বা অন্য কিছুকে ছড়া নামে প্রতিস্থাপিত করা ! মানুষের ভীড়ে মানুষের মতো কতকগুলো হনুমান গরিলা ওরাংওটাং বা এ জাতীয় কিছু প্রাণী ছেড়ে দিয়ে এক কাতারে মানুষ বলে চালিয়ে দিলে যা হয়।

মানুষের দুই পা দুই হাত থাকে, ওগুলোরও দুই পা দুই হাত। পায়ের উপর ভর করে এরা সবাই হাঁটে। মেরুদণ্ড কিছুটা কুঁজো করে হাঁটা মানুষের মধ্যেও রয়েছে। বিশেষ করে বার্ধক্য আক্রান্ত মানুষের জন্য। মাঝে মাঝে বাঁদরামী সুলভ আচরণ মানুষও করে। তাহলে কি মানুষ আর হনুমান গরিলা এক হয়ে গেলো ! বিবেচনার বাহ্যিক দৃষ্টি ঝাপসা হলে দু’টোর মধ্যে তফাৎ ঘুঁচে যাওয়া বিচিত্র নয়। আর দ্বিতীয় পর্যায়ের প্রাণীগুলোর সংখ্যাধিক্য ঘটতে থাকলে এক সময়ে হনুমান গরিলাই যদি মানুষের পরিচয়ের প্রতিনিধিত্ব করতে থাকে, তাতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু আছে কি ? তবুও হনুমান গরিলার দ্বারা মানুষের স্থান দখল করা সম্ভব নয়। পার্থক্যের ভুলে কিছুকাল দাপাদাপি করলেও ঠিকই এদের আসল পরিচয়গুলো বেরিয়ে আসে। কোন্ আসল পরিচয় ? এটা হলো অন্তর্গত স্বভাব, আচরণের প্রকৃতি আর সৃজনশীল প্রণোদনায় মানুষের সাথে এদের মৌলিক ও ব্যাপক পার্থক্য।

Read the rest of this entry »


রণদীপম বসু


‘চিন্তারাজিকে লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোন মাহাত্ম্য নেই। তা প্রকাশ করতে যদি লজ্জাবোধ হয়, তবে সে ধরনের চিন্তা না করাই বোধ হয় ভাল।...’
.
.
.
(C) Ranadipam Basu

Blog Stats

  • 555,626 hits

Enter your email address to subscribe to this blog and receive notifications of new posts by email.

Join 140 other followers

Follow h-o-r-o-p-p-a-হ-র-প্পা on WordPress.com

কৃতকর্ম

সিঁড়িঘর

দিনপঞ্জি

অগাষ্ট 2020
রবি সোম বুধ বৃহ. শু. শনি
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

Bangladesh Genocide

1971 Bangladesh Genocide Archive

War Crimes Strategy Forum

লাইভ ট্রাফিক

ক’জন দেখছেন ?

হরপ্পা কাউন্টার

Add to Technorati Favorites

গুগল-সূচক

টুইট

Protected by Copyscape Web Plagiarism Check

Flickr Photos