h-o-r-o-p-p-a-হ-র-প্পা

Posts Tagged ‘অসুর

Lothal_Horoppa

ইতিহাসের ঝুল-বারান্দায় বাঙলা ও বাঙালি- ০৩
-রণদীপম বসু

(৩)
নৃতত্ত্বের নিরীখে বাঙলার ভূমিপুত্রেরা বা আদিম অধিবাসীরা ছিল অস্ট্রিক ভাষাভাষী গোষ্ঠীর লোক। নৃতত্ত্বের ভাষায় এদের প্রাক্-দ্রাবিড় বা আদি-অস্ত্রাল (Proto-Australoids) বলা হয়। এই অস্ট্রিকরা এক সময়ে পাঞ্জাব থেকে শুরু করে প্রশান্ত মহাসাগরের সুদূর ইস্টার দ্বীপ অবধি বিস্তৃত ছিল। প্রাচীন বৈদিক সাহিত্যে এদের ‘নিষাদ’ বলে বর্ণনা করা হয়েছে। বাঙলার আদিবাসীদের মধ্যে সাঁওতাল, লোধা প্রভৃতি উপজাতিসমূহ এই গোষ্ঠীর লোক। এছাড়া, হিন্দুসমাজের তথাকথিত ‘অন্ত্যজ’ জাতিরাও এই গোষ্ঠীরই বংশধর। এ বুনিয়াদের উপর বাঙলায় প্রথম অনুপ্রবেশ করে স্তরীভূত হয়েছে দ্রাবিড়রা। বৈদিক সাহিত্যে এদের ‘দস্যু’ বলে অভিহিত করা হয়েছে। আবার দ্রাবিড়দের অনুসরণে আসে আর্য ভাষাভাষী আল্পীয়রা (Alpinoids বা Alpine)। এদের দিনারিক বা আর্মেনয়েডও বলে। দ্রাবিড়দের থেকে আল্পীয়রা সংখ্যাগরিষ্ঠ ছিল বলেই বাঙালিজাতি তার নৃতাত্ত্বিক বৈশিষ্ট্য (হ্রস্ব কপাল) এদের থেকেই পেয়েছে, যা উত্তর ভারতের (দীর্ঘ কপাল) নর্ডিক গোষ্ঠীভুক্ত বৈদিক আর্য জাতি থেকে বাঙালির পার্থক্য। Read the rest of this entry »

84510281_10215908211607081_4421704805878071296_n

ইতিহাসের ঝুল-বারান্দায় বাঙলা ও বাঙালি- ০২
রণদীপম বসু

(২)
প্রাসঙ্গিকভাবে আমাদের স্মরণে রাখা ভালো যে, বর্তমান পৃথিবীতে যেসব জনজাতি রয়েছে তারা সকলেই একই বর্গ (Genus) ও প্রজাতি (Species) থেকে উদ্ভূত হলেও, তাদের মধ্যে যেসব বৈশিষ্ট্যমূলক চেহারার পার্থক্য আছে, যার জন্যে তাদের বিভিন্ন জাতির লোক বলা হয়, তা হলো জিনঘটিত পরিব্যক্তি (Gene mutation), প্রাকৃতিক নির্বাচন (Natural selection), পরিবেশগত প্রভাব (Environmental Isfluence) ও জন মিশ্রণ (Population Mixture)।
একেবারে আদিম স্তর থেকে আরম্ভ করে সভ্যতার উচ্চ স্তর পর্যন্ত যেসব নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠী সারা ভারত জুড়ে ছড়িয়ে আছে এদের আকৃতি প্রকৃতি, জীবনযাত্রা, ভাব ভাষা ইত্যাদি নানা বিষয় বিচার করে পণ্ডিতেরা এদের কয়েকটা জনগোষ্ঠীতে ভাগ করেছেন– ক) নিগ্রয়েড বা নেগ্রিটো (Nigroid), খ) প্রোটো-অস্ট্রালয়েড বা আদি-অস্ট্রেলীয় (Proto-Australoid), গ) প্রোটো-দ্রাবিড় বা প্রত্ন-দ্রাবিড় (Mediterranean), ঘ) আলপাইন বা আলপীয় (Alpinoid), ঙ) প্রোটো-নর্ডিক (Nordic), চ) মঙ্গোলীয় বা ভোট চিন (Palae-Mongoloid)। Read the rest of this entry »

540652_461563537191202_540159052_n

| ভারতীয় দর্শনের বিকাশ-০১ : চার্বাকমতের প্রাক-পটভূমি |
রণদীপম বসু

ভারতীয় দর্শনের বিকাশ ও বস্তুবাদী পটভূমি

চার্বাক-দর্শন ভারতবর্ষের সুপ্রাচীন এবং একমাত্র বস্তুবাদী বা জড়বাদী দর্শন। কিন্তু  বস্তুবাদের একমাত্র প্রতিনিধি হয়েও ভারতবর্ষের দর্শনসভায় চার্বাক সিদ্ধান্ত ‘বস্তুবাদী’ আখ্যার পরিবর্তে ‘নাস্তিক’ সংজ্ঞার মাধ্যমেই অধিকতর পরিচিত। এতেই বোঝা যায় যে, মূলধারার সবগুলি দর্শনের রোষানলের মধ্যে থেকেই চার্বাকদেরকে নিজেদের অবস্থান টিকিয়ে রাখতে হয়েছে। Read the rest of this entry »

daynight

| আর্য-সংস্কৃতি ও বৈদিক-যুগ-১৫ : ঋত |
রণদীপম বসু

৩.৫ : ঋত

অথর্বন্-দের সঙ্গে যে-অঙ্গিরস্-দের নাম থেকে অথর্ববেদের আদি-নামকরণ, ঋগ্বেদের প্রাচীন অংশের কবিরাও তাঁদের সুদূর অতীতের অসীম শক্তিশালী জাদুকর বলে স্মরণ করেছেন এবং সেই সঙ্গেই স্মরণ করেছেন যে তাঁরা ছিলেন ঋত-বান বা ঋত-যুক্ত। যেমন–

ত ইন্দেবানাং সধমাদ আসন্নৃতাবানঃ কবয়ঃ পূর্ব্যাসঃ।
গূড়্হং জ্যোতিঃ পিতরো অন্ববিন্দন্ত্সত্যমন্ত্রা অজনয়ন্নুষাসম্ ।। (ঋগ্বেদ-৭/৭৬/৪)।
সমান ঊর্বে অধি সঙ্গতাসঃ সং জাততে ন যতন্তে মিথস্তে।
তো দেবানাং ন মিনন্তি ব্রতান্যমর্ধন্তো বসুভির্যাদমানাঃ।। (ঋগ্বেদ-৭/৭৬/৫)।
অর্থাৎ :
যে ঋতবান অঙ্গিরাগণ কবি, পূর্বকালীন পিতা ও যাঁরা গূঢ় জ্যোতি লাভ করেছিলেন এবং অবিতথ মন্ত্রদ্বারা ঊষাকে প্রাদুর্ভূত করেছিলেন, তাঁরাই দেবগণের সঙ্গে একত্রে প্রমত্ত হতেন। (ঋক-৭/৭৬/৪)।।  তাঁরা সাধারণ গো-সমূহের জন্য সঙ্গত হয়ে একবুদ্ধি (পরস্পর সমান) হয়ে ছিলেন। তাঁরা কি পরস্পর যত্ন করেন নি? তাঁরা দেবগণের কর্ম হিংসা করেন না। তাঁরা হিংসারহিত বাসপ্রদ কিরণের দ্বারা গমন করেন। (ঋক-৭/৭৬/৫)।।

Read the rest of this entry »

kirsi_Handling-Chaos

| আর্য-সংস্কৃতি ও বৈদিক-যুগ-১১ : দ্যুলোক বা স্বর্গের দেবতা |
রণদীপম বসু

(ক) দ্যুলোক বা স্বর্গের দেবতা

দ্যুলোকের প্রাচীনতম দেবতা বলতে যাঁর নাম আসে তিনি হলেন দ্যু বা দ্যৌস্, অর্থাৎ আকাশ। তাঁর সম্বন্ধে ঋগ্বেদে কোন পৃথক সূক্ত নেই। অধিকাংশ ক্ষেত্রে তিনি পিতা হিসেবে দ্যৌস্পিতা বলে স্তুত। এবং তাঁর সঙ্গে মাতা পৃথিবীকে যুক্ত করে গুটি দুয়েক সূক্ত পাওয়া যায়। তাতে উভয়ে একত্রে দ্যাবাপৃথিবী বলে উল্লিখিত। যেমন– Read the rest of this entry »

.
| চার্বাক সাহিত্য-০৪ : বার্হস্পত্য, চার্বাক-মতের আদিরূপ |
রণদীপম বসু
৪.০ : বার্হস্পত্য, চার্বাক-মতের আদিরূপ

চার্বাকী জড়বাদী চিন্তাধারার উপর কেবলি এক দেহাত্মবাদী ভোগলিপ্সু দৃষ্টিভঙ্গি আরোপ করে এই মতটি যে ঘৃণ্য অসুর মত তা প্রমাণ ও প্রচারে ব্যস্ত হওয়ার নিদর্শন শুধু ভিন্নমতাবলম্বী দার্শনিকদের মধ্যেই নয়, বরং এর প্রবনতা-উৎস ঢের পেছনে সেই উপনিষদ যুগ থেকেই দৃষ্টিগোচর হয়। প্রাচীন ছান্দোগ্য-উপনিষদের (৭০০খ্রিস্টপূর্ব) ‘প্রজাপতি ও ইন্দ্র-বিরোচন সংবাদ’ উপাখ্যানে এই নমুনা অস্পষ্ট নয়। উপাখ্যানটি এরকম- Read the rest of this entry »
.
| চার্বাক সাহিত্য-০৩ : চার্বাক ও বৃহস্পতি |
রণদীপম বসু
৩.০ : চার্বাক ও বৃহস্পতি

চার্বাক দর্শন সম্পর্কে যেটুকু নির্ভরযোগ্য তথ্য পাওয়া যায় তা থেকে এই মতবাদের সূচনার কাল বা ‘চার্বাক’ নামের সঙ্গে এর সংযুক্তির কাহিনী কিছুই সঠিকভাবে নির্ণয় করা এখনো সম্ভব নয়। তাছাড়া এই চিন্তাধারা চার্বাক দর্শন নামে পরিচিতি লাভ করলেও চার্বাক নামে কোন ব্যক্তিকে এর প্রবর্তক বলে স্বীকার করার কোন প্রমাণও এযাবৎ পাওয়া যায়নি। তবে ‘প্রবোধচন্দ্রোদয়’, ‘সর্বদর্শনসংগ্রহ’ প্রভৃতি গ্রন্থে এই মতবাদের আদি প্রচারক হিসেবে বৃহস্পতির নাম উল্লেখ করা আছে। ব্যক্তিরূপী চার্বাক এসব গ্রন্থে স্বীকৃতি পেলেও তা উদ্ধৃত হয়েছে বৃহস্পতিশিষ্য হিসেবে। Read the rest of this entry »

রণদীপম বসু


‘চিন্তারাজিকে লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোন মাহাত্ম্য নেই। তা প্রকাশ করতে যদি লজ্জাবোধ হয়, তবে সে ধরনের চিন্তা না করাই বোধ হয় ভাল।...’
.
.
.
(C) Ranadipam Basu

Blog Stats

  • 557,477 hits

Enter your email address to subscribe to this blog and receive notifications of new posts by email.

Join 141 other followers

Follow h-o-r-o-p-p-a-হ-র-প্পা on WordPress.com

কৃতকর্ম

সিঁড়িঘর

দিনপঞ্জি

অগাষ্ট 2020
রবি সোম বুধ বৃহ. শু. শনি
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

Bangladesh Genocide

1971 Bangladesh Genocide Archive

War Crimes Strategy Forum

লাইভ ট্রাফিক

ক’জন দেখছেন ?

হরপ্পা কাউন্টার

Add to Technorati Favorites

গুগল-সূচক

টুইট

Protected by Copyscape Web Plagiarism Check

Flickr Photos