h-o-r-o-p-p-a-হ-র-প্পা

Archive for the ‘না-ছড়া’ Category

IMG_1665 [1600x1200].

| নাস্তিক কয় কিসে !
রণদীপম বসু

কহেন সাহেব, শোন্ রে মাঝি, নাস্তিক কী জানিস ?
শাহবাগেতে গেছিস নাকি, ওদের কথা মানিস !
ছি ছি ছি ! কী কন সাহেব, এতো কি আর জানি !
নৌকা ভাসাই গাঙের জলে, কেউ তারে কয় পানি।
বলিস কিরে ! সাহেব কহেন, বুদ্ধিটা তো খাশা !
এই কয়েই তো ধর্ম গেলো, দেখছি না তোর আশা !
বিদ্যে হলেই বুঝতি ঠিকই নাস্তিক কয় কিসে,
তোর তো দেখি জীবনখানা বারো আনাই মিছে !
. Read the rest of this entry »

529537_4926253227645_1019461048_n
.
আহা কী বিচার !
রণদীপম বসু

একটা খুনেই হবে ফাঁসি
তিনশ’ খুনে জেল,
যদি বলো লক্ষ খুনে ?
বেকসুরে হবেই খালাশ
কিসের ফাঁসি জেল !
ট্যাগ সমুহঃ ,

| এবার দেখি কওতো বাপু !
-রণদীপম বসু
[শিল্পীরা এমনি এমনি নমস্য হন না ! ইন্টারনেট থেকে আহরিত ও ব্যবহৃত যে ভাস্কর্য-ছবিটা দেখছেন এখানে, ভাবতেই অবাক হই, আমার বর্তমান অবস্থাটা শিল্পী আগেভাগে বুঝলেন কী করে ! বিদ্যুৎ সমাচার নিয়ে আমার কোন কথা নাই। কেবল আরেকজন নমস্য ব্যক্তিকে শ্রদ্ধা জানাতেই এবারের না-ছড়াটার জন্ম। সেই মহাজন ব্যক্তির প্রচারিত বাণীটিকে স্বতঃসিদ্ধ জ্ঞান করছি। তিনি নাকি ঘণ্টায় ঘণ্টায় বিদ্যুতের আসা-যাওয়া নিয়ে পাবলিকের মুখপ্যাদানি খেয়ে প্রচারযন্ত্রে শ্রীমুখ প্রদর্শন করে বলেছিলেন- এখন থেকে বিদ্যুৎ যাবে একনাগাড়ে দু’ঘণ্টার জন্য, তাহলে আর কেউ বলতে পারবে না যে ঘণ্টায় ঘণ্টায় বিদ্যুৎ যায়।  আহা, কী অমৃত বচন ! তাঁর সাথে বিদ্যুৎও বুঝি অগস্ত্যযাত্রায় গেছে ! সত্যি কি এমন কথা বলেছিলেন কেউ !]

ঠা ঠা রোদে দৌঁড়ে এসে  ফ্যানের তলে বসবো যেই
একটু আগেই ঘুরছিলো তা, এখন নাকি বিদ্যুৎ নেই !

বাইরে আগুন ভিত্রে আগুন  আগুন মাথার চান্দিটায়
দিনের আজাব কী বলবো আর ! সিদ্ধ বানায় রাত তিনটায় ! Read the rest of this entry »
ট্যাগ সমুহঃ

| কারা এতো চিল্লায়..!
-রণদীপম বসু
ইহা জ্ঞানী পোস্ট নয়। নিতান্তই অগভীর ক্ষুদ্র একটা না-ছড়া।
এই কয়েক লাখ পাবলিক মরে গেলেও রাষ্ট্রের কিছু যায় আসে না, একটা লোমও খসে পড়বে না। তবে মন্ত্রী বাহাদুরদের কিঞ্চিৎ গলা শুকালেও রাষ্ট্রের অনেক কিছুই যায় আসে। তাই মন্ত্রী বাঁচলে দেশ বাঁচবে- এই অনুসিদ্ধান্তে যারা একমত হবেন তারা এই পোস্টের ভেতরে ঢুকতে পারেন। যারা এই প্রতিপাদ্যে বিশ্বাসী নন, তার নিজ দায়িত্বে পোস্টে ঢুকুন। অস্বস্তিকর অনুভূতির জন্য নিজে ছাড়া অন্য কাউকে দায়ী করা যাবে না।

পাবলিক পাজি খুব, শুধু সমালোচনা
মন্ত্রীরা যন্ত্র কি ? মুখ পেট আছে না !
তাদেরও তো ক্ষুধা পায়, মন চায় কতো কী !
মন্ত্রী হয়েছে বলে বন্ধ ওসব কি ? Read the rest of this entry »
ট্যাগ সমুহঃ

miahbhai_1213400306_5-B5

কাঁচকি ছড়া – ০১
-রণদীপম বসু

.
বাঁশ
আঁইক্কাটা ছেঁটে ফেলে
মেখে গাওয়া ঘি
বাঁশ খেয়ে হাঁদারাম
করে হা হা হি।
.

চোখ
এক চোখ ডানে আর
এক চোখ বাঁয়ে
কী দোষ চোখের, গেলে
মেয়েদের গায়ে !

কেউ কি দেখেছে কোনো
শহরে বা গাঁয়ে
খসে গেছে কোন কিছু
দৃষ্টির ঘা’য়ে ?
(১৭/০৬/২০০৮)

[sachalayatan]

.

ভাত

চাইলে মাথা কানটা টানো
দেহ চাইলে টানো হাত,
চাও যদি খুব খেতে আলু
চাও তবে ঠিক মোটা ভাত।

.

বুঝ

কা.. বলতেই কাবাব বুঝেন
কাচ্চি যে নয় সাদা ভাত ;
কাজের কথা বললে, তিনি
কানের ব্যথায় কুপোকাৎ !

নামের মোহ নাই নাকি, তাও
নামটা ছড়ায় দিগবিদিক ;
মা.. বললে মান বুঝেন না
মাইয়া মাগী বুঝেন ঠিক !
(১৭/০৬/২০০৮)

bilde-005-225x300

আব্রু
-রণদীপম বসু

.
দামটা যতই চড়ুক ঈদে পার্বণে
ধাম করে আর যাবেন কোথায় কার বনে !
ঘাম ঝরিয়ে যেতেই হবে মার্কেটে
জানবেনও না- বসে আছেন কার পেটে !

ঘুরবে মাথা ভনভনভন
তাইলে এখন…!

লজ্জা ঢাকার পোশাক কেনার ভেট ধরে
দানা-পানিই না পান যদি পেট ভরে
লাভ কী তবে !
তার চেয়ে কি এই ভালো নয়, দিলাম সালাম ওয়ালাইকুম-
পোশাক তোমায় দিলাম বাদ
দিগম্বরই জিন্দাবাদ,
সমস্যা নেই !
হাঁটুন সোজা পথ ধরেই,
কে তাকাবে !
আঁৎকে ওঠে লজ্জা পেয়ে উল্টো সবাই ছুটবে ধুম !

হাহ্ হাহ্ হা ! এক ঢিলে দুই পাখি মারা, দারুণ নয় !
বাঁচবে টাকা, আব্রুটাও রক্ষা হয় !!
(১৩/০৪/২০০৯)

[sachalayatan]

7074526

আয়না
-রণদীপম বসু

.
দেখতে যে যায়, চমকে ওঠে- এই চেহারা কার !
কোত্থেকে এক আয়না এলো বিদঘুটে কারবার !
করিম সাহেব আঁৎকে ওঠেন ছাগল বিম্ব দেখে,
নাকের আগায় শিং দেখে কি অবশেষে
বসলো হোসেন বেঁকে –
এই ছবিই আমার ?
থলথলে এই ঝুল-চামড়ায় আমি কি গণ্ডার !

আহারে তুই থাম্ না হোসেন, মীম’কে দেখতে দে-
দুই-মুখো এক সাপ দেখে মীম ফিচকে ওঠে কেঁদে।
যদুটাকে জানতো গাধা সবাই মোটামুটি
তাই বলে কি
শেয়ালমুখো টম’কে দেখে হেসেই কুটি কুটি !

আঙুল দিয়ে দেখায় যদু আয়নাটার এক কোণে
চেয়ারটাতে গা এলিয়ে
ধবধবে এক সাহেব গাধা কান তোলে কী শোনে !
আরে আরে ! এ তো দেখি হেড কেরাণি বসের পিএ
খাশ পেয়ারা লোক
নিমেষে যে মারতে পারে রাজা উজির অথবা যেই হোক !

পাশ দিয়ে কোন্ বলদ গেলো, হেলেদুলে,
শিং দুটো তার কই !
কোথাও কি ফের গোল বেঁধেছে
ভুল ঠিকানায় গুঁতো দিয়ে বাঁধালো হৈ চৈ ?
কী দেখতে কী দেখছে সবাই চমকে ওঠে ভুতও
আয়নাটার এই তেলেসমাতির খবর ছড়ায় দ্রুত।

দলে দলে আসলো ছুটে উজির নাজির বরপেয়াদা সব
অফিসটা কি আজব খোয়াড় ভুতুরে উৎসব !
কোথায় গেলো দুবৃত্তটা, আনো ধরে ! রাজার দূতে কয়-
ছুঁড়ে ফেলো এক্ষুণি তা
নইলে ওটা
গুড়িয়ে দেবে শৃঙ্খলা সব ডুবাবে নিশ্চয় !

এই না ভেবে-
আছড়ে দিতে আয়নাটাকে দু’হাত দিয়ে তুলে
অবাক হয়ে দেখলো সবাই
এ কী আজব ছবিরে ভাই-
ইয়া বড় কুষ্মাণ্ড এক বোঁটার নীচে ঝুলে!
(১১-০২-২০০৯)

.
[sachalayatan]


রণদীপম বসু


‘চিন্তারাজিকে লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোন মাহাত্ম্য নেই। তা প্রকাশ করতে যদি লজ্জাবোধ হয়, তবে সে ধরনের চিন্তা না করাই বোধ হয় ভাল।...’
.
.
.
(C) Ranadipam Basu

Blog Stats

  • 557,476 hits

Enter your email address to subscribe to this blog and receive notifications of new posts by email.

Join 141 other followers

Follow h-o-r-o-p-p-a-হ-র-প্পা on WordPress.com

কৃতকর্ম

সিঁড়িঘর

দিনপঞ্জি

অগাষ্ট 2020
রবি সোম বুধ বৃহ. শু. শনি
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

Bangladesh Genocide

1971 Bangladesh Genocide Archive

War Crimes Strategy Forum

লাইভ ট্রাফিক

ক’জন দেখছেন ?

হরপ্পা কাউন্টার

Add to Technorati Favorites

গুগল-সূচক

টুইট

Protected by Copyscape Web Plagiarism Check

Flickr Photos